দাগনভূঞায়  স্ত্রী নির্যাতনের অভিযোগে ব্যাংক কর্মকর্তা গ্রেফতার

বিশেষ প্রতিনিধি ঃ
দাগনভূঞায় স্ত্রী নির্যাতনের অভিযোগে দাগনভূঞা উপজেলার দক্ষিন আলীপুর গ্রামের ওবায়দুল হকের ছেলে একরামুল হক কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার রাতে  ভাড়া বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। পরের দিন   শনিবার তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।
পুলিশ ও নির্যাতিতা সূত্রে জানা যায়, স্থানীয় পূবালী ব্যাংকের কর্মকর্তা একরামুল হকের (৩১) বিরুদ্ধে তার স্ত্রী ফারহানাসুলতানা নির্যাতন ও যৌতুক দাবীর অভিযোগ এনে গত ১১ অক্টোবর আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। ওইদিন আদালত একরামুল হকের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। ওই পরোয়ানার ভিত্তিতে শুক্রবার রাতে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। অভিযুক্ত একরামুল হক দাগনভূঞা উপজেলার দক্ষিন আলীপুর গ্রামের ওবায়দুল হকের ছেলে।


২০১৫ সালে সোনাগাজী উপজেলার চরলক্ষ্মিগঞ্জ গ্রামের ইকবাল হোসেনের মেয়ে ফারহানা সুলতানাকে বিয়ে করেন একরাম। বিয়ের পর থেকে সে তার স্ত্রীকে ৫ লাখ টাকা যৌতুকের দাবীতে প্রায়ই নির্যাতন করত। একপর্যায়ে যৌতুকের টাকা না পেয়ে স্ত্রীকে মারধর করে ১ বছরের শিশু কন্যাসহ বাবার বাড়ীতে পাঠিয়ে দেয় একরাম। পরিশেষে বাধ্য হয়ে তার স্ত্রী ১১ অক্টোবর সোনাগাজী আমলী আদালতে একটি নির্যাতন মামলা দায়ের করেন।

Share Button

3 thoughts on “দাগনভূঞায়  স্ত্রী নির্যাতনের অভিযোগে ব্যাংক কর্মকর্তা গ্রেফতার

  • November 5, 2017 at 11:58 pm
    Permalink

    এটাতো আমার বিশ্বাস করতে কস্ট হচ্ছে। দঃক্ষিন আলিপুরে ওর মত ভালো মানুষ আর একটা আছে কি না সন্দেহ। সম্ভবত এটি একটি ষড়যন্ত্র। আমি দাগনভুঞা.কম কে অনুরোধ করবো যদি সম্ভব হয় তদন্ত স্বাপেক্ষে আসল ও মুল সত্যটি বের করে তুলে ধরুন।

    Reply
    • November 6, 2017 at 7:57 am
      Permalink

      ভুক্তভোগী কেউ এগিয়ে আসলে হয়ত আমাদের কিছু করার থাকে । জিনিস টা যখন আদালত পর্যন্ত গেল তাইলে এখন সত্য মিথ্যা আদালত এ বুঝবে ।

      Reply

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *