দাগনভূঞার সিন্দুরপুরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মারামারি আহত-৩

দাগনভূঞার সিন্দুরপুর ইউনিয়নের অলাতলীতে তুচ্ছ বিষয়কে কেন্দ্র করে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে। সোমবার রাতে হাসান কোম্পানীর নতুন বাড়িতে এঘটনায় তিনজন আহত হয়েছে। গুরুতর আহত একজনকে চট্টগ্রাম মেডিকেলে ভতি করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানায়, ওই রাতে পাশ্ববর্তী বাড়ির আবদুল কাইয়ুম এর সাথে আজিমের তুচ্ছ বিষয় নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। স্থানীয় মো. মামুন দুইজনেক বুঝিয়ে শুনিয়ে বাড়িতে পাঠানোর চেষ্টা করে। এই ফাঁকে কাইয়ুম ফোন করে সিন্দুরপুরের অলাতলীর নুর নবী প্রকাশ লতামুন্সির ছেলে দাগী সন্ত্রাসী মো. জাহাঙ্গীর (৩২) কে সংঘর্ষের কথা বলে ঘটনাস্থলে আসতে বলেন। জাহাঙ্গীর এর নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী ঘটনাস্থলে পৌঁছে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মামুনের বাড়িতে হামলা করে পরিবারের লোকজনকে এলোপাথাড়ি কোপাতে থাকে। এসময় বাঁধা দিতে গেলে গৃহকর্তা আহসান উল্যাহ, ছেলে মো. নাজিম উদ্দিন (৪০), কলেজ পড়–য়া নাতি মৃত. আবদুর রাজ্জাকের ছেলে আবু ফায়েদা ইমন (২০) রক্তাক্ত আহত হয়। আহত গৃহকর্তা, ছেলে ও নাতিকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এদের মধ্যে নাতি আবু ফায়েদা ইমন এর অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাকে কর্তব্যরত চিকিৎসক চট্টগ্রাম মেডিকেলে প্রেরণ করেন। এঘটনায় মামুন বাদী হয়ে দাগনভূঞা থানায় মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানান।

মো. মামুন জানান, উত্তেজিত দুইজনকে বুঝিয়ে ঘটনাস্থল থেকে সরিয়ে দিই। কিন্তু কাইয়ুম তুচ্ছ বিষয়কে কেন্দ্র করে আমি তাদের ঝগড়া থামালাম কেন এজন্য আমার বাড়িতে অস্ত্র নিয়ে সন্ত্রাসী হামলা করে আমার পরিবারের লোকজনকে আহত করে।

ঘটনার খবর পেয়ে কোরাইশ মুন্সি পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ এস.আই সাইফুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

Share Button

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *