ফেনীর ফুলগাজীতে স্কুলছাত্রী অপহরণে ১৪ বছরের কারাদণ্ড

ফেনীর ফুলগাজীতে নয় বছর আগে স্কুলছাত্রীকে অপহরণ মামলায় একজনকে ১৪ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। সোমবার দুপুরে ফেনীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মামুনুর রশিদ এ রায় দেন। দণ্ডপ্রাপ্ত সাইফুল ইসলাম ফেনীর ফুলগাজীর উত্তর ধর্মপুর গ্রামের আবদুল লতিফের ছেলে। মামলার পর জামিন নিয়ে পালিয়ে গেছেন তিনি। গ্রেপ্তারের পর থেকে তার সাজা কার্যকর হবে রায়ে বলা হয়েছে।
একইসঙ্গে তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও দুই মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে বলে এপিপি ফরিদ আহম্মদ হাজারী জানান।
মামলার নথির বরাত দিয়ে তিনি জানান, ২০০৯ সালের ১২ জুলাই মায়ের অসুস্থতার কথা বলে প্রতিবেশী মেয়েটিকে স্কুল থেকে ফুঁসলিয়ে নিয়ে যায় সাইফুল। পরে তাকে ফেনী ও চট্টগ্রামে নিয়ে একটি ঘরে বন্দি করে রাখে। ঘটনার দুই দিন পর মেয়েটির ভাই বাদী হয়ে সাইফুলের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ফুলগাজী থানায় মামলা করেন।
অপহরণের তিন মাস পর মেয়েটিকে ছাগলনাইয়ার পাঠাননগর এলাকায় ফেলে রেখে যায় সাইফুল। পরে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করলেও জামিন নিয়ে পালিয়ে যায়।

Share Button

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *