সেনবাগে মামুনের ফাঁসির দাবীতে মানববন্ধন

সেনবাগের উত্তরজনপদের ত্রাস আন্ত:জেলা ডাকাত সর্দার ১১ মামলার প্রধান আসামী ছাতারপাইয়ার পাঁচতুপায় গ্রেপ্তারকৃত কসাই মামুনের ফাঁসিসহ শাস্তির দাবিতে সহ¯্রাধিক নারী-পুরুষ-শিক্ষার্থী-স্থানীয় জনতা দীর্ঘ দুই ঘন্টা ধরে মানববন্ধন করেছে। আজ শনিবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত স্থানীয় পাঁচতুপা জিরো পয়েন্টে এ কর্মসূচি পালিত হয়। এ সময় কসাই মামুনের নির্যাতনের চিত্র তুলে ধরেন। স্থানীয় জনতা কসাই মামুনের সেকেন্ড ইন কমান্ড মিন্টুসহ তাদের পুরো চক্রকে গ্রেপ্তারের দাবি জানান। মানববন্ধন কর্মসূচীতে নির্যাতিতা স্থানীয় মরিয়ম (৪৮), নাজমা বেগম (৪০), রেহানা আক্তার (২৮), সিরাজ মিয়া (৬০), আকবতির নেছা (৬০), আলী করিম (৬২) মসজিদের ইমাম মোহাম্মদ আলী (৫০), ব্যবসায়ী মজিবুল হক খোকন (৪৫) চুরি, ডাকাতি, চাঁদাবাজি ধর্ষণ শ্লীলতাহানিসহ নানা অপরাধের বিস্তারিত বর্ণনা দেন। এ সময় এলাকাবাসীর পক্ষে সাংবাদিক জসিম মিলন ও নজির আহম্মদ বক্তব্য রাখেন। নির্যাতনের শিকার ভূক্তভোগীরা জানান, সেনবাগ উপজেলার শেষ নাঙ্গলকোট ও সোনাইমুড়ী উপজেলার সীমান্ত এলাকার পাঁচতুপায় কসাই মামুনের দীর্ঘ এক যুগ ধরে রাম রাজত্ব কায়েম করে চলেছে। তার অত্যাচারে রাতে মহিলারা ঘর থেকে ল্যাট্রিনে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছে। কয়েক বছর আগে কসাই মামুনের নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা পাঁচতুপা দক্ষিণ পাড়ার তাজুল ইসলাম (৬০) কে কুপিয়ে হত্যা করে। ডাকাতি, গরুচুরি, ধর্ষণ, শ্লীলতাহানি, স্কুলগামী ছাত্রীদের ইভটিজিং, মাদক ও ঘর প্রতি চাঁদাবাজির ঘটনায় স্থানীয় লোজজন বিচার না পেয়ে সর্বশান্ত হয়েছে। গত শুক্রবার ডাকাতি প্রস্তুতিকালে স্থানীয় লোকজন তাকে হাতে নাতে আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশের এসআই গৌর সাহা ও এএস আই আশিকুর রহমানের নিকট সোপর্দ করে। বর্তমানে ভুক্তভোগীরা সংগঠিত হয়ে তার শাস্তি নিশ্চিতের দাবিতে ৩ গ্রামের মানুষ আন্দোলনে নেমেছে। আজ দুপুরে এলাকাবাসী তার শাস্তি নিশ্চিতের দাবি জানিয়ে ডিসি, এসপি, ইউএনও ও সেনবাগ থানার ওসির কাছে স্মারকলিপি পেশ করেছে। মামুনের বিরুদ্ধে সেনবাগ থানায় ৫টি, চট্টগ্রামের জোরারগঞ্জ থানায় ২টি, কুমিল্লার নাঙ্গলকোট থানায় ২টি, সোনাইমুড়ী থানায় ২টি সহ মোট ১১টি মামলা রয়েছে। স্থানীয়রা জানান, একটি প্রভাবশালী চক্রের সহায়তায় কসাই মামুন, চুরি ডাকাতি সহ নানা অপরাধ কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছিলো। কসাই মামুন গ্রেপ্তার হলেও সিন্ডিকেটের সহায়তার জামিনে েেবর হয়ে চুরি, ডাকাতিসহ নানা অপরাধে জড়িয়ে পড়ে।

Share Button

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *