ফেঁসে যাওয়ার ভয়ে সমঝোতার চেষ্টায় পরীমনি

Spread the love

পিছু হটেছেন চিত্র নায়িকা পরীমনি। মামলার মূল আসামি নাসির ইউ. আহমেদের সঙ্গে সমঝোতার চেষ্টা করছেন বলে একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছেন। এ ব্যাপারে পরীমনির পক্ষ থেকে কয়েকজন নাসির ইউ. আহমেদের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করছেন বলেও দায়িত্বশীল সূত্র নিশ্চিত করেছে।

নাসির আহমেদের পারিবারিক সূত্র বলছে যে, তারা এই বিষয়টিকে সিরিয়াসলি নিয়েছেন এবং তারা প্রকৃত তথ্য প্রমাণের জন্য এ মামলা লড়ে যেতে চান। কারণ তাদের বিশ্বাস যে শেষ পর্যন্ত এই মামলায় পরীমনি ফেসে যাবেন।

উল্লেখ্য যে, ৮ জুন ঢাকা বোট ক্লাবে পরীমনি এবং তার কয়েকজন সঙ্গে সেখানে গিয়েছিল। সেখানে একটি অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে। এই অপ্রীতিকর ঘটনার তিন দিন পর পরীমনি ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিচার চান। এরপর তিনি গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন।

এর পরদিনই পুলিশের অনুরোধে তিনি সাভার থানায় একটি মামলা করেন। সেই মামলা দায়েরের চার ঘণ্টার মধ্যে মামলার প্রধান আসামীসহ পাঁচজনকে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সদস্যরা গ্রেফতার করেন।

জিজ্ঞাসাবাদের মধ্যেই পরীমনির সম্পর্কে চাঞ্চল্যকর সব তথ্য বেরিয়ে আসছে। বিশেষ করে পরীমনি মামলার এজাহারে যে বক্তব্য দিয়েছেন তার সঙ্গে বাস্তব ঘটনার মিল নেই বলে বিভিন্ন সূত্র নিশ্চিত করেছেন।

কিন্তু সিসিটিভি ফুটেজ এবং অন্যান্য তথ্য উপাত্ত বিশ্লেষণ করে দেখা যাচ্ছে যে পরীমনি সেখানে সেচ্ছায় গিয়েছিলেন। পরীমনি অভিযোগ করেছেন যে, বোট ক্লাবে তাকে জোর করে মদ খাওয়ানো হয়েছে। কিন্তু এখন প্রকাশিত ছবি দেখে বোঝা যাচ্ছে যে তাকে জোর করে নয় বরং স্বেচ্ছায় পরীমনি সেখানে মদ্যপান করেছিলেন।

Share Button

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *