ফেনীতে কেন খালেদার উপর হামলা?

Spread the love

Image may contain: 1 person

 

বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গা শরণার্থীদের দেখতে ও তাদের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করতে গত ২৮ অক্টোবর শনিবার কক্সবাজার গেলেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।যদিও সরকার এই সফরকে বিএনপির নির্বাচনী শোডাউন হিসেবে দেখছে,তথাপি পুর্বের ন্যয় বিএনপির এই কর্মসূচি প্রতিহত করা বা ব্যর্থ্য করে দেওয়ার মত চিন্তা ভাবনা সরকারের আপাতত ছিল না।বরং সরকারের পক্ষথেকে এ ব্যপারে যথেষ্ট সহযোগীতা করা হয়েছে।খোদ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কক্সবাজার সফরকালে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে সব সুবিধা দেওয়ার নির্দেশনা দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘‘প্রধানমন্ত্রী পরিষ্কার করে জানিয়ে দিয়েছেন, ‘উনি (খালেদা জিয়া) বাংলাদেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী। উনি সার্কিট হাউজ ব্যবহার করবেন, ভিআইপি রুমে অবস্থান করবেন। তার আপ্যায়ন ও অবস্থানের সময় যেন কোনও ত্রুটি না হয়’।’’তাছাড়া ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলছেন তারাও চান বিএনপি তাদের কর্মসূচি পালন করুক কিন্তু অশান্তির কিছু হোক সেটা তারা চান না ।এর থেকে প্রমাণিত হয় যে বিএনপির এই কর্মসূচীতে সরকারের বাঁধা দেওয়ার বা পন্ড করার কোন ইচ্চাই ছিল না।এজন্য খালেদা জিয়া ঢাকা থেকে বের হতে কোন বাঁধার সম্মুক্ষিন হতে হন নি।শামিম ওসমানের এলাকা নারায়ণগঞ্জেও কোন বাঁধা আসেনি।ব্রাহ্মণবাড়িয়া,কুমিল্লা পেরিয়ে যখন ফেনী আসলেন তখন খালেদার গাড়িতে হামলা হয়। খালেদা জিয়ার সাথে থাকা নেতাদের ও সাংবাদিকদের গাড়িতে ভাঙচুর হয়।এমন হামলার বা বাঁধার খবর চট্টগ্রাম বা কক্সবাজারে হওয়ার খবর ও পাওয়া যায়নি। শুধু ফেনীতে কেন এই হামলা?কার নির্দেশে এই বাঁধা?অনেকে মনে করেন আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে উপলক্ষে নিজের ক্ষমতা ও দলিয় প্রধানের দৃষ্টিআকর্শন করতে বিরোধী দলীয় প্রধানের গাড়িতে হামলা চালায় ফেনী জেলা আওয়ামীলীগের একজন মনোনয়ন প্রার্থী।নেতার নির্দেশে তার কিছু অতি উৎসাহী ও সুযোগসন্ধানী নেতাকর্মী।নিজের একক ক্ষমতা,ত্রাস দেখিয়ে মনোনয়ন লাভের অপচেষ্টা থেকেই এমন হামলা। আর এই হামলায় বিএনপির গাড়ির পাশাপাশি সুকৌশলে সাংবাদিকদের গাড়ি হামলার শিকার হয়।যাতে এই খবর দ্রুত মিডিয়ায় প্রচার হয়ে যায়।এতে যাতে দ্রুত দলিয় প্রধানের দৃষ্টিকাড়ে। কিন্তু দৃষ্টিকাড়তে এমন সহিংস ঘটনা দলনেত্রী কোন দৃষ্টিতে দেখেন বা জনগনই বা কিভাবে নিচ্ছেন? এমন কাজকি তার মনোনয়ন লাভে সহায়ক হবে,তা বোঝা যাবে মনোনয়ন বাচাইয়ের পরেই।

মেজবাহ আল রিয়াদ

তরুণ গবেষণাধর্মী লেখক

mejbahfenibd@gmail.com

Share Button

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *